x 
Empty Product
Friday, 07 March 2014 12:37

আমের মুকুল বাড়িয়েছে বসন্তের রূপের মাত্রা

Written by 
Rate this item
(0 votes)

003আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবছর চাঁদপুর জেলার সর্বত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে আমগাছগুলোতে শোভা পেয়েছে আমের মুকুল। আর এই মুকুল বসন্তের বিভিন্ন গাছের পাতা পরিবর্তন, তুলাগাছের ফুলের সাথে যোগ করেছেন রূপের নতুন মাত্রা। শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে এ বছর আমের মুকুল গুলো ফুলের মত ফুটে আছে। গাছে আম আশার পূর্বে মুকুলগুলোর এমন দৃশ্য দেখে মন ভরে যায়।
খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, চাঁদপুর জেলা সদর, মতলব উত্তর, দক্ষিন, ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ, শাহরাস্তি, কচুয়া ও হাইমচর উপজেলার প্রত্যেকটি গ্রামের আম গাছে কম বেশী আমের মুকুল বেরিয়েছে। চাঁদপুরে এখনো বাণিজ্যিক ভাবে আমের চাষ হয় না। তারপরও বাড়ির আঙ্গিনা আর বাগানে যেসব আম গাছ রয়েছে, সেগুলোতে আমের মুকুল দেখাগেছে অন্য বছরের তুলনায় অনেক বেশি।
চাঁদপুর সদর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের অধিবাসি আঃ রহিম জানান, তাঁদের বাড়ী ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে। পুরো বাড়ীতে রয়েছে শত শত আমগাছ। গত বছর অনেক গাছেই আমের মুকুল আসেনি। কিন্তু এ বছর ছোট বড় সব গাছেই মুকুল এসেছে। তিনি আশা করছেন যদি কোন প্রকার প্রাকৃতিক দূর্যোগ না আসে তাহলে আমের কাংখিত ফলন হবে।
সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা বাতেন মিয়াজী জানান, তাঁর বাড়ীতে বড় বড় আকৃতির বেশ কয়েকটি আম গাছ রয়েছে। এ বছর তুলনামূলক বেশী মুকুল এসেছে গাছে। তবে অনেক আম গাছ যতœ না নেওয়ায় রুগ্ন দেখা যায়। গাছের গোড়ায় মাটি নেই। কোন ধরনের পরিচর্যা নেই। তারপরও প্রাকৃতিকভাবেই আমগাছগুলো ফলন দিয়ে যাচ্ছে।
চাঁদপুর জেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুরে বাণিজ্যিকভাবে কোন আমের চাষ হয় না। তবে ইদানিং কিছু নার্সারীর মালিকগণ নতুন জাতের আমের চারা আমদানি শুরু করেছে। তবে চাঁদপুরে প্রায় ৬০ প্রকারেরও বেশী আম ফলন হয়।
অনেক প্রশিক্ষিত কৃষক নতুন নতুন আমের বীজ লাগিয়ে সফল হওয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। বাবুরহাট এ্যাপোলো নার্সারিসহ বিভিন্ন নার্সারীতে ফজলী, নেংড়া ইত্যাদি আমের চারা পাওয়া যায়। মাটির উর্বর শক্তি দেখার জন্য পরীক্ষামূলক ভাবে অনেকেই এসব আমের ছারা লাগিয়েছেন। তবে যাদের পরিত্যক্ত জমি পড়ে আছে, তাদের জমিগুলোতে কৃষি বিভাগের পরামর্শক্রমে পরিকল্পিতভাবে আমের বাগান করলে বেশ লাভজনক হবে বলে জানিয়েছেন কয়েকজন নার্সারী মালিক।

Read 517 times

Leave a comment

Make sure you enter the (*) required information where indicated. HTML code is not allowed.